সংবাদ শিরোনামঃ
ঘূর্ণিঝড় রেমাল এর আঘাতে এলাকায় ক্ষতিগ্রস্থ গরীব ও দুঃস্থ্যদের মাঝে ১৭ বিজিবির ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ বুড়িগোয়ালিনী নৌ থানা পুলিশের পক্ষ থেকে  আশ্রয় কেন্দ্রে সাধারণ মানুষের মধ্যে শুকনো খাবার বিতরণ নলিয়ান কালাবগী ঝুলন্ত পাড়ায় ৩৫০ ঘর পানিতে তুলিয়ে ১৫ শ মানুষ আশ্রয়হীন নলিয়ান নৌ থানা দাকোপ,খুলনা পুলিশের পক্ষ থেকে  জনসাধারণ কে আশ্রয় কেন্দ্রে যাওয়ার জন্য দিন ভর মাইকিং ১০ নম্বর মহা বিপদ সংকেত ঘূর্ণিঝড়ের কোন সংকেতের কী মানে? সাতক্ষীরা তালার আটারই ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী সাংবাদিক আকরামুল ইসলামের মতবিনিময় শ্রীমঙ্গলে বিষ খাইয়ে প্রতিবন্ধী সন্তান হত্যার অভিযোগে বাবা-মা কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ শ্যামনগরে ঘূর্ণিঝড় রেমাল মোকাবেলায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির প্রস্তুতি সভা উন্নয়ন কার্যক্রমে পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর অন্তর্ভুক্তি বিষয়ক মতবিনিময় সভা 
শ্যামনগরে জলবায়ু ধর্মঘট পালিত হলো

শ্যামনগরে জলবায়ু ধর্মঘট পালিত হলো

শ্যামনগর প্রতিনিধি: ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে জীবাশ্ম জ্বালানীতে বিনয়োগ বন্ধ ও এর পরিবর্তে টেকসই প্রকল্প এবং নবায়নযোগ্য শক্তিতে বিনিয়োগ করার দাবিতে জলবায়ু ধর্মঘট পালিত হয়েছে।
 (১৯ এপ্রিল শুক্রবার) সকাল ৯ টায় শ্যামনগর প্রেস ক্লাবের সামনে উপকূলীয় যুব সংগঠন কোস্টাল ইয়ূথ নেটওয়ার্ক, জনকল্যান সংস্থা, নির্ভয় ফাউন্ডেশনের আয়োজনে জলবায়ু ধর্মঘট পালিত হয়েছে।
তরুণ জলবায়ু কর্মী ও যুব সংগঠক কোস্টাল ইয়ূথ নেটওয়ার্ক সাধারণ সম্পাদক আলতাপ হোসেন এর সঞ্চালনায় এসময় বক্তব্য রাখেন শ্যামনগর উপজেলা প্রেসক্লাবের আহবায় শেখ আফজালুর রহমান, উপজেলা যুব স্বেচ্চাসেবী সমন্বয় কমিটির আহবায়ক ও উপজেলা অনলাইন নিউজক্লাবের সভাপতি মারুফ হোসেন (মিলন) সহ কোস্টাল ইয়ুথ নেটওয়ার্কের তরুণ জলবায়ু কর্মীরা।
এসময় জলবায়ু সুরক্ষা ও জ্বালানি নিরাপত্তা নিশ্চিতে জীবাশ্ম জ্বালানিতে অর্থায়ন বন্ধ, নবায়নযোগ্য শক্তির সম্প্রসারণ ও টেকসই কৃষিতে বিনিয়োগ বাড়ানোর আহ্বান জানায় তরুণ জলবায়ু আন্দোলনকারীরা।
 এই শান্তিপূর্ণ ধর্মঘটের মধ্য দিয়ে তরুণ জলবায়ু কর্মীরা স্লোগান, প্ল্যাকার্ড, পোস্টার প্রদর্শনের মধ্য দিয়ে জলবায়ু সুবিচারের দাবি জানান। এসময় এখনই জীবাশ্ম জ্বালানিতে বিনিয়োগ বন্ধ করতে হবে এই মর্মে ‘ফিক্স দ্য ফাইন্যান্স নবায়নযোগ্য জ্বালানিতে বিনিয়োগ বৃদ্ধি করো,ক্ষতিকারক কৃষি চর্চায় বিনিয়োগ বন্ধ করো,ক্লাইমেট জাস্টিস নাউ’ এবং ‘জলবায়ু সহনশীল টেকসই কৃষি চর্চায় বিনিয়োগ করুন’সহ ইত্যাদি লেখা ফেস্টুন ও প্ল্যাকার্ড হাতে অবস্থান নেন স্ট্রাইকে যোগ দেওয়া জলবায়ু আন্দোলনকারীরা।
এসময়  তরুণরা তাদের বক্তব্যে বলেন, পুঁজিবাদী মানসিকতা নিয়ে সর্বোচ্চ গ্রিনহাউস গ্যাস নির্গমনকারীউন্নত দেশগুলো জীবাশ্ম জ্বালানিতে অর্থায়নের মাধ্যমে জলবায়ু সংকট সৃষ্টি করছে যা পৃথিবীকে ধ্বংসের দিকে নিয়ে যাচ্ছে। যেখানে মানুষের চেয়ে মুনাফাই মুখ্য। এই অবস্থায় জীবাশ্ম জ্বালানির পরিবর্তে টেকসই প্রকল্প এবং নবায়নযোগ্য শক্তির ক্ষেত্রে বিনিয়োগের আহ্বান এসেছে গ্লোবাল ক্লাইমেট স্ট্রাইকে।
তরুণ জলবায়ু কর্মী ও যুব সংগঠক কোস্টাল ইয়ূথ নেটওয়ার্ক সাধারণ সম্পাদক আলতাপ হোসেন বলেন,জীবাশ্ম জ্বালানিতে অর্থায়ন বন্ধ করা এবং নবায়নযোগ্য শক্তি ও জলবায়ু সহনশীল টেকসই কৃষি চর্চায় বিনিয়োগ বৃদ্ধির দাবিতে সমগ্র পৃথিবীর তরুণ জলবায়ু কর্মীরা আজ আওয়াজ তুলেছে। আমরা তরুণরা এমন এক পৃথিবীর স্বপ্ন দেখি যেখানে কোন মানুষ নিজের স্বার্থের জন্য পৃথিবীকে ধ্বংসের দিকে ঠেলে দিবে না।
এছাড়াও বক্তারা বলেন, ‘সাতক্ষীরার উপকূলীয় মানুষের জলবায়ু সুবিচারের দাবিতে আমরা দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন করছি। বিশেষ করে সুপেয় পানির বানিজ্যিকিকরণ বন্ধ ও সরকারি সেবায় সুপেয় পানি নিশ্চিত করার জন্য অর্থায়ন করলে উপকূলবাসী জলুবায়ুর ক্ষতি মোকাবেলায় সক্ষম হবে।
নির্ভয় ফাউন্ডেশন,জনকল্যান সংস্থা ও কোস্টাল ইয়ুথ নেটওয়ার্কের পাশাপাশি এদিন সারা বিশ্বের তরুণরা জলবায়ু সুবিচার ও জীবাশ্ম জ্বালানিতে বিনিয়োগ বন্ধের দাবিতে ধর্মঘট পালন করেছে। উল্লেখ্য সংগঠন দুটি বাংলাদেশে জলবায়ু সুবিচার নিশ্চিতের দাবিতে দীর্ঘদিন কাজ করে যাচ্ছে। বিশেষ করে উপকূলীয় মানুষের অধিকার আদায় ও তাদের জলবায়ু ন্যায্যতা নিশ্চত করার লক্ষ্যে তাদের এই কার্যক্রম ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগীতায়- সুন্দরবন আইটি লিমিটেড